Unlimited Wordpress themes, plugins, graphics & courses! Unlimited asset downloads! From $16.50/m
Advertisement
  1. Web Design
  2. WordPress Themes

১৫টি বেষ্ট ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিম

by
Length:LongLanguages:

Bengali (বাংলা) translation by Shakila Humaira (you can also view the original English article)

ওয়েবসাইট হচ্ছে ওয়েবে আপনার ঘরের মত।  তাই এক্ষেত্রে প্রফেশনাল চেহারা আনতে বড় বড় বিজনেসগুলো এইসব প্রজেক্টের ক্ষেত্রে প্রচুর বিনিয়োগ করে থাকে।

উদাহরনতঃ একজন পরামর্শককে তার দক্ষতার উপর আস্থাশীল করে তোলা প্রয়োজন এবং একটি কর্পোরেট ওয়েবসাইট প্রজেক্ট এ বিষয়ে তা আত্মবিশ্বাসী করে তোলে। একজন আইনজীবীকে তার সম্পূর্ণ সেবা সম্পর্কে ধারণা প্রদান করা প্রয়োজন এবং স্টাইলিশ সার্ভিস উইজেটসহ একটি ওয়েবসাইট এই প্রয়োজন পূর্ণ করতে সক্ষম। পাবলিক রিপ্রেজেন্টর হিসেবে যিনি কাজ করেন তার জন্য সেরা ক্লায়েন্টের টেস্টিমনিয়াল সুন্দরভাবে তুলে ধরা প্রয়োজন এবং উপযুক্ত স্লাইডার এই কাজটি করতে সক্ষম।

মোটকথা, একজন ছোট ব্যবসায়ী ভালোভাবে ডিজাইন করা একটি পেশাদার ওয়েবসাইট থেকে ব্যাপকভাবে উপকৃত হতে পারেন। এবং একজন ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে, আপনার কাজ হচ্ছে আপনার ক্লায়েণ্টের জন্য সময়মত ও বাজেটের মধ্যে মানসম্পন্ন ওয়েবসাইট তৈরি করা।  এক্ষেত্রে ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিম আপনার জন্য সবিশেষ কাজে লাগতে পারে। এগুলো মানসম্পন্ন কোডিং, নির্ভরযোগ্য ফিচার, এবং ফ্লেক্সিবল ডিজাইন দিয়ে তৈরি যা একটি নতুন ওয়েবসাইটের জন্য প্রয়োজন।

হাই-পারফর্মিং ওয়ার্ডপ্রেস থিমের বৈশিষ্ট্যসমূহ

থিম ফরেস্টে বিভিন্ন বিষয়ের জন্য বাছাইকৃত অসংখ্য শক্তিশালী আপ টু ডেট ওয়ার্ডপ্রেস থিমসমূহ আছে। এই থিমগুলো ব্যবসা থেকে শুরু করে আইন, সঙ্গীত থেকে শুরু করে বাগান করা, কর্পোরেট থেকে শুরু করে মার্কেটিং অসংখ্য বিশেষ বিশেষ ঊদ্দেশ্য নিয়ে তৈরি করা হয়েছে।  এজন্য আপনার কোম্পানির চাহিদামত সঠিক থিমটি খুঁজে পাওয়া আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 

বাছাই না করলে আপনি অসংখ্য অপশন দেখতে পাবেন।  এ কারনেই আপনার সাইটের জন্য সঠিক থিমটি বাছাই করা বেশ চ্যালেঞ্জিং একটি কাজ। কোন কোন বৈশিষ্ট্যের উপর নির্ভর করে আপনি থিম বাছাই করবেন, সে সম্পর্কে আপনাকে একটি ধারণা দিতে একটি মানসম্পন্ন থিমে কি কি থাকা উচিৎ সে বিষয়ে নিচে ধারণা প্রদান করা হলো: 

  • পেইজ বিল্ডার
  • স্লাইডার
  • কন্টাক্ট ফরম
  • কাস্টমাইজেশন অপশন
  • টেস্টিমনিয়াল উইজেট
  • পোর্টফলিও
  • গ্যালারী
  • সার্ভিস লিস্টিং এবং/অথবা উইজেট
  • রেস্পন্সিভ লেআউট/মোবাইল অপ্টিমাইজেশন

সেরা থিম, যেমন নিচের থিমগুলোতে এই বৈশিষ্ট্য/ফিচারগুলো সত্যিকারভাবেই আছে। তাই, এখান থেকে আপনি যেকোনও থিম বেছে নিয়ে তা আপনার প্রজেক্টের প্রয়োজন অনুযায়ী কাস্টমাইজ করে ইন্টারনেটে আপনার কোম্পানি (বা আপনার ক্লায়েন্টের কোম্পানির) জন্য খুব সহজেই একটি অসাধারণ প্রভাবশালী ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন! 

এখানে আমরা থিমফরেস্ট থেকে সর্বোচ্চ চাহিদাসম্পন্ন, জনপ্রিয় ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিমগুলো তুলে ধরছি। এগুলো হচ্ছে এমন কিছু ওয়ার্ডপ্রেস থিম যা সময়ের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে এবং নিয়মিত হালনাগাদ করা হয়ে থাকে। 

Wordpress business themes
থিমফরেস্টে বিক্রির জন্য উপলভ্য বেশ কিছু ওয়ার্ডপ্রেস কর্পোরেট থিম

এই আর্টিকেলে আমরা এমন কিছু জনপ্রিয় থিম তুলে ধরছি যা ধারাবাহিকভাবে আমাদের সেলস চার্টে শীর্ষ অবস্থানে আছে। এই থিমগুলো প্রতি সপ্তাহে, প্রফেশনাল ওয়েব ডিজাইনারদের দ্বারা থিমফরেস্টে আপলোড হওয়া থিমের তুলনায় একেবারেই নগন্য। 

সেরা ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিমসমূহ

আপনি এখন নিশ্চয় জানেন যে কোন বৈশিষ্ট্য/ফিচারগুলো সচরাচর দরকার হয়, চলুন এবার আমরা থিমফরেস্ট থেকে সেরা ১৫ টি বিজনেস ওয়ার্ডপ্রেস থিমে কী আছে না আছে তা দেখি, যাতে আপনি আপনার ব্যবসায়ের জন্য সঠিক থিমটি বেছে নিতে পারেনঃ  

১। আভাদা – বেস্ট সেলিং ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিম

আভাদা এই মুহূর্তে থিমফরেস্টে সেরা বিক্রীত থিম যা ২০০,০০০ এরও বেশি ডাউনলোড করা হয়েছে।  এটা দিয়ে যেকোনো ধরণের ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় এবং আর এ কারনেই এটাকে ওয়ার্ডপ্রেস থিমের “সুইস আর্মি নাইফ” বলা হয়।  কোড না ছুঁয়েই আপনি এই থিম দিয়ে যেকোনো ধরণের কাস্টমাইজেশন করতে পারবেন।  এতে আছে ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ ফিউশন বিল্ডার, উকমার্স ইন্টিগ্রেশন করার সুযোগ, রেস্পন্সিভ ডিজাইন, মেগামেনু, শর্টকোড জেনারেটর, এবং ফিউশন স্লাইডার। সাপোর্ট এবং আপডেটও অন্তর্ভুক্ত আছে।

Avada Wodpress Business Theme

২। এনফোল্ড – ইউজার-ফ্রেন্ডলি বিজনেস ওয়ার্ডপ্রেস থিম

এনফোল্ড হচ্ছে বর্তমান ওয়ার্ডপ্রেস থিমগুলোর মধ্যে সর্বাধিক ইউজার-ফ্রেন্ডলি থিম, যাতে সহজে ব্যবহারযোগ্য প্যাকেজে অসংখ্য ফিচারসমূহ আছে।  এই থিমে প্রিডিফাইনেড কন্টেন্ট, অসংখ্য ডেমো, একটি অসাধারণ রেস্পন্সিভ লেআউট, দুই মিনিটে সেটআপ করার সুবিধা, একটি ড্র্যাগ এন্ড ড্রপ লেআউট এডিটর, রেটিনা-রেডি গ্রাফিক্স, সহজে ব্যবহারযোগ্য এডমিন এরিয়া, উকমার্স সাপোর্ট, এসইও অপ্টিমাইজেশন, WPML সাপোর্ট, স্লাইডশো, গ্রাভিটি ফরম সাপোর্ট, সম্পূর্ণ ডকুমেন্টেশন, সংক্ষিপ্ত টিউটোরিয়াল এবং আরও অনেক কিছু আছে।

Enfold Business WP Theme

৩। ইউডিজাইন – রেস্পন্সিভ, কর্পোরেট ওয়ার্ডপ্রেস থিম

আরেকটি টপ সেলার কর্পোরেট ওয়ার্ডপ্রেস থিম হচ্ছে ইউডিজাইন যা মোবাইল রেস্পন্সিভ এবং শিক্ষানবিশ ও পেশাদার উভয়ের জন্যই এতে অসংখ্য কাস্টমাইজেশন অপশন আছে। এতে আছে ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ পেইজ বিল্ডার, ২০০০ এরও বেশি ফন্ট, অসংখ্য কালার এবং উকমার্স সাপোর্ট। এটা এসইও এবং দ্রুত লোড করার জন্য কাস্টমাইজ করা হয়েছে। এছাড়াও এতে পাবেন এক্সক্লুসিভ সাপোর্ট ফোরাম, নিবেদিতপ্রান সাপোর্ট স্পেশালিস্ট এবং নিয়মিত হালনাগাদ করার সুবিধা। 

uDesign Corporate WordPress Theme

৪। দি সেভেন – কাস্টমাইজেবল ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফর বিজনেস

দি সেভেন হচ্ছে আরেকটি অসাধারণ থিম যা অন্যান্য থিমের তুলনায় সবচেয়ে বেশি কাস্টমাইজযোগ্য মনে করা হয়।  এতে যেকোনো ধরণের ব্যবসার জন্য প্রায় ৬৩০ টি অপশন আছে, যা দিয়ে আপনি যেকোনো ধরণের ডিজাইন তৈরি করতে পারবেন।  এতে আছে একটি ডিজাইন উইজার্ড, ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ করে লেআউট তৈরি করার জন্য ভিজুয়াল কম্পোজার, এবং ডিজাইন লাইব্রেরী এক্সেস করার সুবিধা যা দিয়ে আপনি একেবারেই অন্যরকম ডিজাইন তৈরি করতে পারবেন। এছাড়াও দি সেভেনে আছে উকমার্স সাপোর্ট, পোর্টফলিও, মিডিয়া অ্যালবাম পোস্ট টাইপ, এসইও অপটিমাইজেশন, একইসাথে আপডেট এবং সম্পূর্ণ সাপোর্ট।

The7 WordPress Theme for Business

৫। জুপিটার – মাল্টি পারপাস ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিম

জুপিটার হচ্ছে একটি মাল্টি-পারপাস রেস্পন্সিভ ওয়ার্ডপ্রেস থিম যাতে ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ ইন্টারফেস ব্যবহার করে খুব সহজেই ওয়েবসাইট বানানো যায়।  এটার ডিজাইন খুব হালকা পাতলা এবং দ্রুত শুরু করার জন্য ৫০ এরও অধিক টেম্পলেট আছে। এডমিন এড়িয়াটিও খুব সহজ কিন্তু শক্তিশালী এবং এতে একটি হেডার স্টাইল কাস্টমাইজার, একটি ব্যাকগ্রাউন্ড কাস্টমাইজার এবং আরো অনেক কিছু আছে। এছাড়াও এতে একটি প্রান্তিক স্লাইডশো, ২৩০ টি স্টাইলের ১০০ এরও বেশি ঊপাদান, এবং অসংখ্য ফ্রি অ্যাড-অন সমূহ আছে।

Jupiter WP Multi-Purpose Business Theme

৬। বিথিম – পপুলার ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফর বিজনেস

এই মুহূর্তে আরেকটি জনপ্রিয় রেস্পন্সিভ থিম হচ্ছে বিথিম।  এতে আছে ১৮০ টিরও বেশি প্রাক-নির্মিত লেআউট যা শুধুমাত্র একটি ক্লিকেই ইন্সটল করা যায়। এছাড়াও মাফিন বিল্ডার ৩, এবং একটি পরিচিত ডিজাইন যা আপনার পছন্দমত যেকোনো লেআউট তৈরি করতে আপনি সহজেই সেটআপ করতে পারবেন।  এতে আছে ২০ ধরনের হেডার স্টাইল, অসংখ্য কাস্টমাইজেশন অপশন, মেগা মেনু, প্যারালাক্স ইফেক্ট, ভিডিও ব্যাকগ্রাউন্ড, একটি শর্টকোড জেনারেটর, একটি ওয়ান-ক্লিক স্কিন জেনারেটর, ফণ্ট আপলোডার, অসংখ্য মেনু এবং আরও অনেক কিছু। 

BeTheme - Popular WP Theme

৭। কর্ম – শক্তিশালী ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিম

আরেকটি অসাধারণ বিস্তৃত থিম হচ্ছে কর্ম, যা শিক্ষানবিশ থেকে শুরু করে পেশাদার প্রত্যেকেই ব্যবহার করতে পারে। এতে আছে স্বয়ংক্রিয় হালনাগাদ, সাপোর্ট, পরিচিত ডিজাইন অপশন এবং মার্জিত সংক্ষিপ্ত স্টাইল।  এতে আছে ৩০ আলাদা আলাদা কালার স্কিম এবং ভিজুয়াল কম্পোজার, সেইসাথে এটা রেস্পন্সিভ এবং এসইও এবং WPML এর জন্য অপ্টিমাইজ করা।  এই থিমে উকমার্স এবং গ্র্যাভিটি ফরমের জন্য সাপোর্ট আছে, এবং এটা দিয়ে আপনি কাস্টম উইজেট থেকে শুরু করে প্রিমিয়াম স্লাইডার ছাড়াও অসংখ্য উপায়ে কাস্টমাইজ করতে পারবেন।

Karma WP Business Theme

৮। মডার্নাইযার – মডার্ন ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিম

আপনার আশা অনুযায়ী মডার্নাইযার হচ্ছে এমন একটি মডার্ন থিম যাতে একটি ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ পেইজ বিল্ডার, সম্পূর্ণ এবং বক্স লেআঊট অপশন, কাস্টম পোস্ট টাইপ, ব্লগ কলাম  লেআউট এবং বিল্ট ইন লেয়ার স্লাইডার আছে।  এই বিজনেস ওয়ার্ডপ্রেস থিমে উকমার্স এবং লোকালাইজেশনের জন্য সাপোর্ট আছে, এবং এসইও এর জন্য অপ্টিমাইজ করা হয়েছে। এতে আছে শর্টকোড, কাস্টম ডিজাইন অপশন, প্রাইসিং টেবিল এবং আরো অনেক কিছু।

Modernize - Modern WordPress Business Theme

৯। ইনোভাডো – ফ্লেক্সিবল ওয়ার্ডপ্রেস থিম

এটা একটি অসাধারণ রেস্পন্সিভ, রেটিনা-রেডি ওয়ার্ডপ্রেস থিম যা অবিশ্বাস্যভাবে নমনীয় বা ফ্লেক্সিবল। ইনোভাডো খুব দ্রুত এবং অসংখ্যভাবে ব্যবহারের উপযোগী করেই ডিজাইন করা হয়েছে, যার ফলে সাইট তৈরি করার প্রক্রিয়া খুব সাবলীল ও সরল মনে হয়। এই থিমে আছে মেগা মেনু, ৫০০ এরও বেশি গুগল ফন্ট, কয়েক ধরণের হেডার ডিজাইন, প্রিমিয়াম স্লাইডার, এবং উকমার্স সাপোর্ট, কাস্টম পোস্ট টাইপ, কাস্টম সিএসএস এবং অনুবাদ করার সুবিধা।

Inovado Flexible WP Business Theme

১০। টোটাল – ফিচার-রিচ বিজনেস থিম ফর ওয়ার্ডপ্রেস

টোটাল থিম তার নামের মতই নতুন ও পুরাতন ওয়েব ডিজাইনারদের জন্য সব ধরণের বৈশিষ্ট্য-সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা প্রদান করেই বেঁচে আছে।  এটা রেস্পন্সিভ, এতে আছে একটি ড্র্যাগ-এন্ড-ড্রপ পেইজ বিল্ডার, এবং কোড ছুয়ে অথবা না ছুঁয়েই আপনার কন্টেন্টসমূহ কাস্টমাইজ করতে পারবেন।  এতে আছে ভিজুয়াল কম্পোজার, লেয়ার স্লাইডার ৫, স্লাইডার রেভ্যুলশন, এবং টেম্পলেটেরা। এছাড়াও এটা উকমার্স, বিবিপ্রেস, এবং কন্টাক্ট ফরম ৭ সাপোর্ট করে এবং এক ক্লিকেই অসংখ্য ডেমো ইন্সটল করার সুবিধা আছে।

Total - Business Theme for WordPress

১১। ডাইনামিক্স – ডাইনামিক কর্পোরেট ওয়ার্ডপ্রেস থিম

ডাইনামিক্স হচ্ছে সত্যিকারের ডায়নামো যখন এমন অনেক গুলো ফিচার থাকে যা আপনি ভেবেই পাবেন না কি করবেন।  এই কর্পোরেট ওয়ার্ডপ্রেস থিমটি রেস্পন্সিভ এবং উকমার্স ও বাডিপ্রেস সাপোর্ট করে এবং এতে স্লাইডার রেভ্যুলশন, ভিজুয়াল কম্পোজার, একটি লাইভ কাস্টমাইজার, একটি ফিল্টারেবল পোর্টফলিও, এবং এক ক্লিকে ডেমো ইস্টলেশনের সুবিধা আছে যার ফলে অত্যন্ত দ্রুত সেটআপ করা সম্ভব। একইসাথে এই থিমটি ট্রান্সলেশন রেডী এবং এসইও এর জন্য অপ্টিমাইজ করা। এতে অসংখ্য স্কিন, মাল্টিসাইট এবং আরো অনেক কিছু সাপোর্ট করে।

DynamiX Corporate WP Theme

১২। স্টারলিং – ভারসেটাইল বিজনেস সাইট ওয়ার্ডপ্রেস থিম

বিজনেস ওয়েবসাইটের জন্য পারফেক্ট আরেকটি বেস্ট সেলার ওয়ার্ডপ্রেস থিম হচ্ছে স্টারলিং। এটা রেস্পন্সিভ এবং সহজে ব্যবহারযোগ্য ফ্রেমওয়ার্ক দিয়ে তৈরি যাতে অসংখ্য লেআউট অপশনসমূহ আছে। এছাড়াও এটা WPML এবং উকমার্সের সাথে কম্প্যাটিবল। সেই সাথে এতে আছে 3D CU3ER এবং লেয়ার স্লাইডার প্লাগিন, ফুল ডকুমেন্টেশন, সাপোর্ট এবং ট্রেনিং ভিডিও। এছাড়াও এতে অসংখ্য শর্টকোড সাপোর্ট করে যা ওয়েবসাইট স্টাইল করাকে আরো সহজ করে তুলেছে।

Sterling Business Site WP Theme

১৩। থ্রিক্লিকস – ফ্লেক্সিবল কর্পোরেট ওয়ার্ডপ্রেস থিম 

থ্রিক্লিক্স হচ্ছে আরেকটি অসাধারণ বিজনেস থিম অপশন যা রেস্পন্সিভ। এতে আছে পেজ বিল্ডার, উকমার্স সাপোর্ট এবং অসংখ্য কাস্টমাইজেশন অপশন।  যেমন এটাতে ৯ টি আলাদা আলাদা স্কিন, অসংখ্য কালার এবং মেট্রোমেনু ব্যবহার করার সুবিধা আছে। এছাড়াও এতে আছে কাস্টম পোস্টটাইপ, শক্তিশালী অ্যাডমিন প্যানেল এবং এটা এসইও এবং পেইজ স্পিডের জন্যও অপ্টিমাইজ করা হয়েছে।

3Clicks Corporate WordPress Theme

১৪। আলিস্কা – মাল্টি পারপাস কোম্পানি ওয়ার্ডপ্রেস থিম

আলিস্কা কর্পোরেট ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য কিন্তু রুচিশীল কিন্তু ফ্লেক্সিবল ডিজাইন প্রদান করে।  এই ওয়ার্ডপ্রেস থিমটি রেস্পন্সিভ এবং রেটিনা-রেডি, যাতে কয়েক ধরণের ডিসপ্লে অপশন আপনার পছন্দমত ডিজাইন তৈরির জন্য ২২৫ টি ব্যাকগ্রাউণ্ড ইমেজ আছে।  এই বিজনেস থিমে সম্পূর্ণ সাপোর্ট, আপডেট এবং একটি কুইক ইন্সটলেশন গাইড আছে তাই আপনি খুব দ্রুত সব কিছু সেটআপ ও চালু করতে পারবেন।

Alyeska Company WordPress Theme

১৫। ব্লু ডায়মন্ড - স্মার্ট ওয়ার্ডপ্রেস থিম ফর বিজনেস

এই লিস্টের সর্বশেষ ওয়ার্ডপ্রেস থিম হচ্ছে ব্লু ডায়মন্ড, একটি স্মার্ট রেস্পন্সিভ থিম যাতে আপনি নিখুঁত বিজনেস ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য সব ধরনের টুল সমুহই পাবেন। এতে আছে পেজ বিল্ডার, লেয়ার স্লাইডার, মাল্টিপল লেআউট, একটি লাইভ কালার চেঞ্জার, লোকালাইজেশন সাপোর্ট এবং আরও অনেক কিছু। এছাড়াও এটা এসইও এবং লোকালাইজেশনের জন্যও অপ্টিমাইজ করা এবং সহজে কাস্টমাইজ করা যায় মন একটি উন্নত এডমিন প্যানেলও আছে।

Blue Diamond WP Theme for Business

ব্যবসার জন্য ওয়ার্ডপ্রেস থিম দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য ৩টি টিপস

১। সঠিক ওয়ার্ডপ্রেস থিম নির্বাচন করুন

সঠিক থিম আপনার সাইটকে সুন্দর অথবা অসুন্দর দুটোই করতে পারে। অথবা, নিদেনপক্ষে একটি সাইটকে দাঁড় করাতে পারে। কিন্তু, আপনি যদি ডিজাইনের সাথে পরিচিত না হোন তাহলে এটা জটিল মনে হতে পারে। নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু করার সব চেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে আপনার শিল্প সম্পর্কিত যতগুলো ওয়েবসাইট দেখা সম্ভব হয়, তা দেখে নেয়া। আপনি কি ধরনের ডিজাইন পছন্দ করেন সেটি নোট করুন। বড় হেডার? মাল্টি-কলাম লেআউট? বেশ কিছু ফাঁকা জায়গা? ওয়েব ডিজাইনের জন্য অনুপ্রেরণা খুঁজে বের করুন এবং আপনার পছন্দ ও অপছন্দ নোট করুন।

তারপর, ওয়ার্ডপ্রেস থিমসমূহ দেখুন এবং কোন কোন ফিচারগুলো অন্তর্ভুক্ত আছে তা ভালো করে পড়ুন। পূর্ববর্তী প্যারাগ্রাফে কোন কোন ডিজাইন উপাদান আছে তা আপনাকে স্মরণ রাখতে হবে কিন্তু একইসাথে নতুন কিছু করতে হলে কোন ফিচারগুলো লাগবে সে বিষয়টিও মাথায় রাখুন। অসংখ্য কন্টেন্ট অন্তর্ভূত করার পরিকল্পনা করেছেন? এক্ষেত্রে মেগামেনু হচ্ছে একটি ভালো উপায়। একটি গ্যালারী অন্তর্ভুক্ত করতে চান? এমন একটি থিম বেছে নিন যাতে বিল্ট-ইন স্লাইডশো, স্লাইডার এবং লাইটবক্স ফিচারসমূহ আছে।

এছাড়াও, আপনার ব্যবসার লক্ষ্যের সাথে মিলিয়ে আপনার ওয়েবসাইটটি পরিকল্পনা করার বিষয়ে নিশ্চিত হন, কীভাবে এটি করবেন সে সম্পর্কে এই ভিডিওতে আরো জানুন:

অবশেষে, আপনার শর্টলিস্টে থাকা থিমগুলো কে তৈরি করেছেন তা দেখুন। আপনার নির্বাচিত থিমটি যাতে থিমফরেস্টে ভালো খ্যাতি আছে এমন কোনও ডেভেলপারের হাতে তৈরি হয়। 

২। সঠিকভাবে আপনার থিমটি ইন্সটল করুন

থিম নির্বাচন করার পর তা সঠিকভাবে ইন্সটল করাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমি যদিও এখানে বিস্তারিত বিবরণ দিতে পারবো না, তবে আমরা এই টিউটোরিয়ালে বিশদভাবে ওয়ার্ডপ্রেস থিম ইনস্টল করার প্রক্রিয়াটি বর্ণনা করেছি:

আপনি হয়তোবা জানেন, একটি থিম প্রথমে লোকালহোস্টে ইন্সটল করা বেশ উপকারী যাতে আপনি লাইভ সাইট হিসেবে আপলোড করার আগেই আপনার সমস্ত কাস্টমাইজেশন করে নিতে পারেন। এছাড়াও কিভাবে চাইল্ড থিম তৈরি করতে হয় তাও জেনে রাখা ভালো।

৩। আপনার ব্র্যাণ্ডের সঙ্গে সঙ্গতি রাখুন

পরিশেষে, আপনি যখন আপনার থিম অলংকরণ ও কাস্টমাইজ করবেন, তখন ডিজাইনটি যাতে আপনার কোম্পানির ব্র্যাণ্ডের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ হয় তা নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য প্রফেশনালভাবে ডিজাইন করা লোগো এবং হেডারসমূহ ব্যবহার করুন। একটি আকর্ষণীয় কোম্পানি বৃত্তান্ত তৈরি করুন এবং আপনার প্রস্তাবসমূহ পরিস্কারভাবে তুলে ধরুন। আপনি এই রচনায় ব্র্যান্ডিং সম্পর্কে আরও জানতে পারবেন:

আজই একটি নির্ভরযোগ্য, শক্তিশালী ওয়ার্ডপ্রেস থিম বেছে নিন!

একটি কর্পোরেট অথবা বিজনেস ওয়েবসাইট তৈরি করা প্রথম প্রথম বেশ কষ্টকর মনে হতে পারে কিন্তু হাতে সঠিক ওয়ার্ডপ্রেস বিজনেস থিম থাকলে আপনি আপনার বা আপনার ক্লায়েন্টের কোম্পানির জন্য কোনও মাথাব্যথা ছাড়াই সেরা ওয়েবসাইটটি তৈরি করতে পারবেন। এবং থিম ফরেস্টে যথেষ্ট পরিমান থিম আছে যা দিয়ে আপনি কোনও খটকা ছাড়াই আপনার সাইট ডেভেলপমেন্ট করতে পারবেন।

Advertisement
Advertisement
Advertisement
Advertisement
Looking for something to help kick start your next project?
Envato Market has a range of items for sale to help get you started.